চুয়াডাঙ্গা ০২:০৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ
চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ চুয়াডাঙ্গায় আন্ত‌জেলা অজ্ঞান পার্টির সক্রিয় ৬ সদস্য  আটক; চেতনা নাশক ঔষধ উদ্ধার দামুড়হুদার ডুগডুগি বাজারে বিট পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার ফয়জুর রহমান-অপরাধ দমনে পুলিশ কে তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন স্ত্রী‌কে সম্ভ্রমহা‌নি করার অপরা‌ধে ক‌বিরাজ‌কে জবাই ক‌রে হত্যা দামুড়হুদায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি টগর-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় জনগণের কথা চিন্তা করে দামুড়হুদায় মাশরুম চাষ সম্প্রসারণে মাঠ দিবসে সাবেক মহাপরিচালক ড. হামিদুর রহমান -চুয়াডাঙ্গার মাটি কৃষির ঘাটি দামুড়হুদায় জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা দামুড়হুদার আটকবর মোড়ে পূর্ববিরোধের জেরে ২জনকে কুপিয়ে, মারপিটে জখম করার অভিযোগ  দামুড়হুদার দুটি রাস্তার উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন কালে এমপি টগর -আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়নমূখী সরকার দামুড়হুদায় বোরো ধান সংগ্রহের লটারী অনুষ্ঠিত 

যে কারণে ঈদের দিনে পর্যটক নেই সুন্দরবনে

ঈদের ছুটিতে সুন্দরবনে পর্যটকে ঠাসা থাকবে। ভ্রমণপিপাসুদের সংখ্যা অন্তত হাজার ছাড়িয় যাবে। সেই ধারণায় আগাম প্রস্তুতিও ছিল বনবিভাগের। কিন্তু ঈদের দিনে আসেনি তেমন পর্যটক।

 

শনিবার (২২ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ৩টা পর্যন্ত মাত্র শ’ খানেক পর্যটক এসেছে সুন্দরবন ভ্রমণে। সুন্দরবনে করমজল পর্যটন স্পটের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাওলাদার আজাদ কবির এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

 

তিনি বলেন, ঈদের ছুটিতে পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড় হবে, তাই আগাম প্রস্তুতি হিসেবে করমজলসহ সুন্দরবনের বিভিন্ন পর্যটন স্পট ব্যাপকভাবে সাজানো হয়। বিনোদনের জন্য নতুন করে কিছু স্থাপনাও তৈরি করা হয়েছে। কিন্তু পর্যটকরা আসেনি। প্রচণ্ড গরম এ কারণে হয়তো তারা আসেনি। তবে আগামীকাল থেকে পর্যটক বেশি হবে, আশা করেন তিনি।

 

যে ক’জন পর্যটক করমজলে এসেছে তারা সবাই মোংলার স্থানীয় এবং সুন্দরবনে আশপাশের।  ৫ থেকে ৭টি ট্রলারে করে প্রায় ১০০ জন পর্যটক এসেছে এখানে। দূর-দূরান্ত থেকে পর্যটকারা আসেনি, তারা কাল থেকে আসবে বলে জানান বন কর্মকর্তা আজাদ কবির।

 

এদিকে সুন্দরবনের আরেক পর্যটন স্পট হারবাড়িয়া ইকো-ট্যুরিজমের অবস্থা আরও শোচনীয়। সেখানে একজন পর্যটকও আসেনি। এখানকার কর্মকর্তা তানভীর আহমেদ বলেন, ‘ঈদের প্রথম দিনে সবাই ব্যস্ত সময় পার করছেন। তাই পর্যটক আসেনি। তবে কাল থেকে পর্যটক বাড়বে।’

 

ট্যুর অপারেটর ব্যবসায়ী আরালসি কোম্পানির মালিক মোঃ নান্টু বলেন, ঈদের ছুটি উপলক্ষ্যে তার লঞ্চে পর্যটক আসবে ২৪ তারিখ থেকে। আগাম বুকিং দেওয়া ৫৬ জন পর্যটক সুন্দরবনের কটক কচিখালী যাবেন। তবে আজ কেউ আসেনি।

প্রসঙ্গঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

যে কারণে ঈদের দিনে পর্যটক নেই সুন্দরবনে

প্রকাশ : ০৬:৩৬:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ এপ্রিল ২০২৩

ঈদের ছুটিতে সুন্দরবনে পর্যটকে ঠাসা থাকবে। ভ্রমণপিপাসুদের সংখ্যা অন্তত হাজার ছাড়িয় যাবে। সেই ধারণায় আগাম প্রস্তুতিও ছিল বনবিভাগের। কিন্তু ঈদের দিনে আসেনি তেমন পর্যটক।

 

শনিবার (২২ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ৩টা পর্যন্ত মাত্র শ’ খানেক পর্যটক এসেছে সুন্দরবন ভ্রমণে। সুন্দরবনে করমজল পর্যটন স্পটের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাওলাদার আজাদ কবির এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

 

তিনি বলেন, ঈদের ছুটিতে পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড় হবে, তাই আগাম প্রস্তুতি হিসেবে করমজলসহ সুন্দরবনের বিভিন্ন পর্যটন স্পট ব্যাপকভাবে সাজানো হয়। বিনোদনের জন্য নতুন করে কিছু স্থাপনাও তৈরি করা হয়েছে। কিন্তু পর্যটকরা আসেনি। প্রচণ্ড গরম এ কারণে হয়তো তারা আসেনি। তবে আগামীকাল থেকে পর্যটক বেশি হবে, আশা করেন তিনি।

 

যে ক’জন পর্যটক করমজলে এসেছে তারা সবাই মোংলার স্থানীয় এবং সুন্দরবনে আশপাশের।  ৫ থেকে ৭টি ট্রলারে করে প্রায় ১০০ জন পর্যটক এসেছে এখানে। দূর-দূরান্ত থেকে পর্যটকারা আসেনি, তারা কাল থেকে আসবে বলে জানান বন কর্মকর্তা আজাদ কবির।

 

এদিকে সুন্দরবনের আরেক পর্যটন স্পট হারবাড়িয়া ইকো-ট্যুরিজমের অবস্থা আরও শোচনীয়। সেখানে একজন পর্যটকও আসেনি। এখানকার কর্মকর্তা তানভীর আহমেদ বলেন, ‘ঈদের প্রথম দিনে সবাই ব্যস্ত সময় পার করছেন। তাই পর্যটক আসেনি। তবে কাল থেকে পর্যটক বাড়বে।’

 

ট্যুর অপারেটর ব্যবসায়ী আরালসি কোম্পানির মালিক মোঃ নান্টু বলেন, ঈদের ছুটি উপলক্ষ্যে তার লঞ্চে পর্যটক আসবে ২৪ তারিখ থেকে। আগাম বুকিং দেওয়া ৫৬ জন পর্যটক সুন্দরবনের কটক কচিখালী যাবেন। তবে আজ কেউ আসেনি।