চুয়াডাঙ্গা ১১:১১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ
চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ চুয়াডাঙ্গায় আন্ত‌জেলা অজ্ঞান পার্টির সক্রিয় ৬ সদস্য  আটক; চেতনা নাশক ঔষধ উদ্ধার দামুড়হুদার ডুগডুগি বাজারে বিট পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার ফয়জুর রহমান-অপরাধ দমনে পুলিশ কে তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন স্ত্রী‌কে সম্ভ্রমহা‌নি করার অপরা‌ধে ক‌বিরাজ‌কে জবাই ক‌রে হত্যা দামুড়হুদায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি টগর-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় জনগণের কথা চিন্তা করে দামুড়হুদায় মাশরুম চাষ সম্প্রসারণে মাঠ দিবসে সাবেক মহাপরিচালক ড. হামিদুর রহমান -চুয়াডাঙ্গার মাটি কৃষির ঘাটি দামুড়হুদায় জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা দামুড়হুদার আটকবর মোড়ে পূর্ববিরোধের জেরে ২জনকে কুপিয়ে, মারপিটে জখম করার অভিযোগ  দামুড়হুদার দুটি রাস্তার উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন কালে এমপি টগর -আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়নমূখী সরকার দামুড়হুদায় বোরো ধান সংগ্রহের লটারী অনুষ্ঠিত 

যশোরে ইজিবাইক ছিনতাইকারী চক্রের ০২ সদস্য গ্রেফতার

যশোর জেলার চৌগাছা থানাধীন ফুলসারা নিমতলা সাকিনস্থ মোঃ মহিউদ্দিনের ছেলে মোঃ আলিমুদ্দিন (২২) পেশায় একজন ইজিবাইক চালক। গত ০৫/০৩/২০২৩তাং বেলা অনুমান ১২.০০ ঘটিকার সময় আলিমুদ্দিন ইজিবাইক নিয়ে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মুখে পৌঁছালে অজ্ঞাতনামা ২/৩ জন ব্যক্তি কোতয়ালী থানাধীন খয়েরতলা যাওয়ার কথা বলে ৪০০/- (চারশত) টাকায় ভাড়া নেয়। আলিমুদ্দিন তাদের নিয়ে খয়েলতলা বাজারে রেল স্টেশনের নিকট আসলে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা একটি চায়ের দোকানে নিয়ে আলিমুদ্দিনকে কফি পান করতে দেয়। উক্ত কপি পান করার পর আলিমুদ্দিন জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তখন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা আলিমুদ্দিনের ইজিবাইক এবং তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন নিয়ে ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যায়।

 

উক্ত ঘটনা সংক্রান্তে ভিকটিম আলিমুদ্দিন পিবিআই যশোর জেলা অফিসে এসে অভিযোগ দায়ের করলে পিবিআই, যশোর জেলা অত্র কার্যালয়ের জিডি নং-৯২, তারিখ-১০/০৩/২০২৩ খ্রিঃ মূলে ঘটনাস্থল পরিদর্শণসহ ছায়া তদন্ত কার্যক্রম শুরু করে। পিবিআই যশোর জেলা ইউনিট ইনচার্জ পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন, পিপিএম-সেবা এর নেতৃত্তে¡ এসআই(নিঃ) সৈয়দ রবিউল আলম পলাশ সঙ্গীয় এসআই(নিঃ) মোঃ মনিরুল ইসলামসহ যশোর জেলার চৌকস দল ছায়া তদন্তকালীন সময়ে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ভিকটিম আলিমুদ্দিনের ইজিবাইক ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িত মর্মে সন্দেহ হলে আসামী

 

০১। মোঃ তুহিন খন্দকার (৪০), পিং-মোঃ কেরামত খন্দকার, সাং-বিলবাউচ, থানা-কালিয়া, জেলা-নড়াইলকে গত ১১/০৩/২০২৩ খ্রিঃ রাত অনুমান ০৯.০৫ ঘটিকার সময় বাঘারপাড়া থানাধীন ধলগা রাস্তার মোড়ে নড়াইল টু যশোরগামী ঢাকা মেট্রো-ব ১৪-৪৭৯১ নম্বরের যাত্রীবাহি বাস থেকে এবং আসামী ০২। চুন্নু মোল্লা (৩৫), পিং-মৃত ওহাব আলী মোল্লা, সাং-ডর বল্লাহাটি, থানা-নড়াগাতী, জেলা-নড়াইল, এ/পি সাং-পাখিমারা, থানা-নড়াগাতী, জেলা-নড়াইলকে অদ্য ১২/০৩/২০২৩ খ্রিঃ রাত অনুমান ০৪.০০ ঘটিকার সময় তার বর্তমান ঠিকানা হতে ফৌঃ কাঃ বিঃ ৫৪ ধারা মোতাবেক তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

 

গ্রেফতারকালে আসামীদ্বয়ের স্বীকারোক্তি মোতাবেক আসামী তুহিন খন্দকারের নিকট থেকে ভিকটিমের লুন্ঠিত মোবাইল উদ্ধার করা হয় এবং পলাতক আসামী মামুন শেখের শ্বশুর সৈয়দ মিজানুর রহমানের বাড়ির সামনের রাস্তার উপর থেকে ভিকটিমের লুন্ঠিত ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়। উক্ত ঘটনা সংক্রান্তে ভিকটিম আলিমুদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলে যশোর কোতয়ালী মডেল থানার থানার মামলা নং-৪৬, তারিখ-১২/০৩/২০২৩ খ্রিঃ, ধারা-৩২৮/৩৭৯/৩৪ পেনাল কোড রুজু হয়।

 

মামলাটি পিবিআই, যশোর জেলা স্ব-উদ্দ্যোগে গ্রহণ করে মামলার তদন্তভার এসআই (নিঃ) সৈয়দ রবিউল আলম পলাশ এর উপর অর্পণ করা হয়। মামলার তদন্তভার গ্রহণ করে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই(নিঃ) সৈয়দ রবিউল আলম পলাশ কৌশলে চালককে অজ্ঞান করে ইজিবাইক ছিনতাই সংক্রান্তে আসামী মোঃ তুহিন খন্দকার (৪০) ও চুন্নু মোল্লা (৩৫)দ্বয়কে অত্র মামলা সংক্রান্তে গ্রেফতার করে হেফাজতে নেন।

 

জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, ধৃত আসামী মোঃ তুহিন খন্দকার (৪০) ও চুন্নু মোল্লা (৩৫) দ্বয়সহ তাদের সহযোগীরা সংঘবদ্ধ ইজিবাইক চোর চক্রের সদস্য এবং তারা বিভিন্ন অপরাধের সহিত জড়িত। তারা ঘটনার দিন অর্থাৎ গত ০৫/০৩/২০২৩ খ্রিঃ বেলা অনুমান ১২.০০ ঘটিকার সময় যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মুখ হতে খয়েরতলা যাওয়ার কথা বলে ৪০০/- (চারশত) টাকায় ভিকটিম আলিমুদ্দিনের ইজিবাইক ভাড়া নেয়। খয়েলতলা বাজারে রেল স্টেশনের নিকট আসলে আসামী তুহিন ও চুন্নু ভিকটিম আলিমুদ্দিনকে ফুসলিয়ে ঘুমের ঔষধ মিশ্রিত কফি পান করিয়ে ভিকটিমকে অজ্ঞান করে তার ব্যবহৃত মোবাইল ও ইজিবাইক চুরি করে নিয়ে যায়।

 

পরবর্তীতে উক্ত ইজিবাইক বিক্রয়ের জন্য আসামী মোঃ তুহিন খন্দকার ও চুন্নু মোল্লা তাদের অপর সদস্য আসামী ০১। মোঃ ফারুক মোল্লা (৩৮), পিং-হাবিবুর মোল্লা, সাং-চুনখোলা এ/পি-সাং-ভওয়াখালী, জমাদ্দার পাড়াস্থ জনৈক সরোয়ার হোসেনের বাড়ির ভাড়াটিয়া এবং ০২। মোঃ মামুন শেখ(২৬), পিং-সাখাওয়াত শেখ, সাং-শোলপুর, উভয় থানা-নড়াইল সদর, জেলা-নড়াইলদ্বয়ের নিকট রেখে আসে।

 

আসামী ফারুক মোল্লা ও মামুন শেখ বর্তমানে পলাতক রয়েছে। ধৃত আসামী মোঃ তুহিন খন্দকার (৪০) ও চুন্নু মোল্লা (৩৫) দ্বয়কে অদ্য ১২/০৩/২০২৩ খ্রিঃ জবানবন্দি প্রদানের নিমিত্তে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। তবে পলাতক আসামীদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টাসহ মামলার তদন্ত অব্যাহত রয়েছে বলে জানা যায়।

জনপ্রিয় সংবাদ

চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

যশোরে ইজিবাইক ছিনতাইকারী চক্রের ০২ সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশ : ০৫:৩২:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মার্চ ২০২৩

যশোর জেলার চৌগাছা থানাধীন ফুলসারা নিমতলা সাকিনস্থ মোঃ মহিউদ্দিনের ছেলে মোঃ আলিমুদ্দিন (২২) পেশায় একজন ইজিবাইক চালক। গত ০৫/০৩/২০২৩তাং বেলা অনুমান ১২.০০ ঘটিকার সময় আলিমুদ্দিন ইজিবাইক নিয়ে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মুখে পৌঁছালে অজ্ঞাতনামা ২/৩ জন ব্যক্তি কোতয়ালী থানাধীন খয়েরতলা যাওয়ার কথা বলে ৪০০/- (চারশত) টাকায় ভাড়া নেয়। আলিমুদ্দিন তাদের নিয়ে খয়েলতলা বাজারে রেল স্টেশনের নিকট আসলে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা একটি চায়ের দোকানে নিয়ে আলিমুদ্দিনকে কফি পান করতে দেয়। উক্ত কপি পান করার পর আলিমুদ্দিন জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তখন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা আলিমুদ্দিনের ইজিবাইক এবং তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন নিয়ে ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যায়।

 

উক্ত ঘটনা সংক্রান্তে ভিকটিম আলিমুদ্দিন পিবিআই যশোর জেলা অফিসে এসে অভিযোগ দায়ের করলে পিবিআই, যশোর জেলা অত্র কার্যালয়ের জিডি নং-৯২, তারিখ-১০/০৩/২০২৩ খ্রিঃ মূলে ঘটনাস্থল পরিদর্শণসহ ছায়া তদন্ত কার্যক্রম শুরু করে। পিবিআই যশোর জেলা ইউনিট ইনচার্জ পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন, পিপিএম-সেবা এর নেতৃত্তে¡ এসআই(নিঃ) সৈয়দ রবিউল আলম পলাশ সঙ্গীয় এসআই(নিঃ) মোঃ মনিরুল ইসলামসহ যশোর জেলার চৌকস দল ছায়া তদন্তকালীন সময়ে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ভিকটিম আলিমুদ্দিনের ইজিবাইক ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িত মর্মে সন্দেহ হলে আসামী

 

০১। মোঃ তুহিন খন্দকার (৪০), পিং-মোঃ কেরামত খন্দকার, সাং-বিলবাউচ, থানা-কালিয়া, জেলা-নড়াইলকে গত ১১/০৩/২০২৩ খ্রিঃ রাত অনুমান ০৯.০৫ ঘটিকার সময় বাঘারপাড়া থানাধীন ধলগা রাস্তার মোড়ে নড়াইল টু যশোরগামী ঢাকা মেট্রো-ব ১৪-৪৭৯১ নম্বরের যাত্রীবাহি বাস থেকে এবং আসামী ০২। চুন্নু মোল্লা (৩৫), পিং-মৃত ওহাব আলী মোল্লা, সাং-ডর বল্লাহাটি, থানা-নড়াগাতী, জেলা-নড়াইল, এ/পি সাং-পাখিমারা, থানা-নড়াগাতী, জেলা-নড়াইলকে অদ্য ১২/০৩/২০২৩ খ্রিঃ রাত অনুমান ০৪.০০ ঘটিকার সময় তার বর্তমান ঠিকানা হতে ফৌঃ কাঃ বিঃ ৫৪ ধারা মোতাবেক তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

 

গ্রেফতারকালে আসামীদ্বয়ের স্বীকারোক্তি মোতাবেক আসামী তুহিন খন্দকারের নিকট থেকে ভিকটিমের লুন্ঠিত মোবাইল উদ্ধার করা হয় এবং পলাতক আসামী মামুন শেখের শ্বশুর সৈয়দ মিজানুর রহমানের বাড়ির সামনের রাস্তার উপর থেকে ভিকটিমের লুন্ঠিত ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়। উক্ত ঘটনা সংক্রান্তে ভিকটিম আলিমুদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলে যশোর কোতয়ালী মডেল থানার থানার মামলা নং-৪৬, তারিখ-১২/০৩/২০২৩ খ্রিঃ, ধারা-৩২৮/৩৭৯/৩৪ পেনাল কোড রুজু হয়।

 

মামলাটি পিবিআই, যশোর জেলা স্ব-উদ্দ্যোগে গ্রহণ করে মামলার তদন্তভার এসআই (নিঃ) সৈয়দ রবিউল আলম পলাশ এর উপর অর্পণ করা হয়। মামলার তদন্তভার গ্রহণ করে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই(নিঃ) সৈয়দ রবিউল আলম পলাশ কৌশলে চালককে অজ্ঞান করে ইজিবাইক ছিনতাই সংক্রান্তে আসামী মোঃ তুহিন খন্দকার (৪০) ও চুন্নু মোল্লা (৩৫)দ্বয়কে অত্র মামলা সংক্রান্তে গ্রেফতার করে হেফাজতে নেন।

 

জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, ধৃত আসামী মোঃ তুহিন খন্দকার (৪০) ও চুন্নু মোল্লা (৩৫) দ্বয়সহ তাদের সহযোগীরা সংঘবদ্ধ ইজিবাইক চোর চক্রের সদস্য এবং তারা বিভিন্ন অপরাধের সহিত জড়িত। তারা ঘটনার দিন অর্থাৎ গত ০৫/০৩/২০২৩ খ্রিঃ বেলা অনুমান ১২.০০ ঘটিকার সময় যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মুখ হতে খয়েরতলা যাওয়ার কথা বলে ৪০০/- (চারশত) টাকায় ভিকটিম আলিমুদ্দিনের ইজিবাইক ভাড়া নেয়। খয়েলতলা বাজারে রেল স্টেশনের নিকট আসলে আসামী তুহিন ও চুন্নু ভিকটিম আলিমুদ্দিনকে ফুসলিয়ে ঘুমের ঔষধ মিশ্রিত কফি পান করিয়ে ভিকটিমকে অজ্ঞান করে তার ব্যবহৃত মোবাইল ও ইজিবাইক চুরি করে নিয়ে যায়।

 

পরবর্তীতে উক্ত ইজিবাইক বিক্রয়ের জন্য আসামী মোঃ তুহিন খন্দকার ও চুন্নু মোল্লা তাদের অপর সদস্য আসামী ০১। মোঃ ফারুক মোল্লা (৩৮), পিং-হাবিবুর মোল্লা, সাং-চুনখোলা এ/পি-সাং-ভওয়াখালী, জমাদ্দার পাড়াস্থ জনৈক সরোয়ার হোসেনের বাড়ির ভাড়াটিয়া এবং ০২। মোঃ মামুন শেখ(২৬), পিং-সাখাওয়াত শেখ, সাং-শোলপুর, উভয় থানা-নড়াইল সদর, জেলা-নড়াইলদ্বয়ের নিকট রেখে আসে।

 

আসামী ফারুক মোল্লা ও মামুন শেখ বর্তমানে পলাতক রয়েছে। ধৃত আসামী মোঃ তুহিন খন্দকার (৪০) ও চুন্নু মোল্লা (৩৫) দ্বয়কে অদ্য ১২/০৩/২০২৩ খ্রিঃ জবানবন্দি প্রদানের নিমিত্তে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। তবে পলাতক আসামীদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টাসহ মামলার তদন্ত অব্যাহত রয়েছে বলে জানা যায়।