চুয়াডাঙ্গা ০৫:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ
চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ চুয়াডাঙ্গায় আন্ত‌জেলা অজ্ঞান পার্টির সক্রিয় ৬ সদস্য  আটক; চেতনা নাশক ঔষধ উদ্ধার দামুড়হুদার ডুগডুগি বাজারে বিট পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার ফয়জুর রহমান-অপরাধ দমনে পুলিশ কে তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন স্ত্রী‌কে সম্ভ্রমহা‌নি করার অপরা‌ধে ক‌বিরাজ‌কে জবাই ক‌রে হত্যা দামুড়হুদায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি টগর-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় জনগণের কথা চিন্তা করে দামুড়হুদায় মাশরুম চাষ সম্প্রসারণে মাঠ দিবসে সাবেক মহাপরিচালক ড. হামিদুর রহমান -চুয়াডাঙ্গার মাটি কৃষির ঘাটি দামুড়হুদায় জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা দামুড়হুদার আটকবর মোড়ে পূর্ববিরোধের জেরে ২জনকে কুপিয়ে, মারপিটে জখম করার অভিযোগ  দামুড়হুদার দুটি রাস্তার উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন কালে এমপি টগর -আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়নমূখী সরকার দামুড়হুদায় বোরো ধান সংগ্রহের লটারী অনুষ্ঠিত 

ভারতীয় বাইক বিক্রিতে ফেসবুকে বিজ্ঞাপন: প্রতারিত হচ্ছে মানুষ

সম্প্রতি ফেসবুকে একাধিক আইডি ও পেজ বা গ্রুপ খুলে বাইক বিক্রির নামে প্রতারণার জাল বিছিয়েছে কিছু  প্রতারক চক্র। ৪০% থেকে ৬৫% মূল্যছাড়ে ইন্ডিয়ান বর্ডার ক্রস মোটরসাইকেল বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন দিয়ে মানুষের সাথে প্রতারণা করছে এই চক্রটি। স্থানীয় প্রশাসনও এই বিষয়টির তদন্তে নেমে প্রতারণা চক্রের কয়েকজনকে শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছে বলে জানা যায়।

তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়, বেনাপোল কাস্টম নিলাম বাইক, বাইক পয়েন্ট, কাস্টম বাইক সেল ও বর্ডার ক্রস কাস্টম বাইকসহ ফেসবুক পেজ ও আইডি খুলে মোটরসাইকেল বিক্রি করছে কয়েকটি প্রতারক চক্র।  দীর্ঘদিন ধরে এসব প্রতারক চক্র বিভিন্ন ধরনের বাইকের ফেক ভিডিও বানিয়ে বিক্রি সহ কাস্টম নিলাম বাইক বলে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছে। বাজার দর ছাড়া কম মূল্যে এসব বাইক বিক্রির কথা বলে বাইক হাতে না পেয়েই নিজেদের অর্থ খুইয়ে প্রতারণার শিকার হয়েছেন অনেকে।

সম্প্রতি এমন প্রতারণার বিষয়টি সামনে আসলে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বেনাপোল সীমান্তের কোথাও বেনাপোল কাস্টম নিলাম  বাইকসহ এ ধরনের কোন বিক্রয় স্পটের অস্তিত্ব নেই।

 

বেনাপোল ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আজিম উদ্দিন গাজী বলেন, একমাত্র টি ভি এস শো-রুম ছাড়া বেনাপোল সীমান্তের কোথাও আর কোন শো-রুমের অস্তিত্ব নেই। এটি একটি প্রতারক চক্র। ফেসবুকে এই সমস্ত প্রতারক চক্র বিভিন্ন নাম ব্যবহার করে সাধারণ মানুষের সাথে প্রাতারণা করছে। আমি বেনাপোল বাসী সহ সকলকে সাবধান থাকার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

 

এদিকে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ কাজ করছে বলে জানান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামাল হোসেন ভূঁইয়া বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা বিষয়টি তদন্ত করে প্রতারক চক্রের কয়েকজনকে শনাক্ত করেছি।  চক্রটির বিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। কেউ এই চক্রটির মাধ্যমে প্রতারিত হবেন না।

প্রসঙ্গঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

ভারতীয় বাইক বিক্রিতে ফেসবুকে বিজ্ঞাপন: প্রতারিত হচ্ছে মানুষ

প্রকাশ : ০৭:৩৭:৫১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মার্চ ২০২৩

সম্প্রতি ফেসবুকে একাধিক আইডি ও পেজ বা গ্রুপ খুলে বাইক বিক্রির নামে প্রতারণার জাল বিছিয়েছে কিছু  প্রতারক চক্র। ৪০% থেকে ৬৫% মূল্যছাড়ে ইন্ডিয়ান বর্ডার ক্রস মোটরসাইকেল বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন দিয়ে মানুষের সাথে প্রতারণা করছে এই চক্রটি। স্থানীয় প্রশাসনও এই বিষয়টির তদন্তে নেমে প্রতারণা চক্রের কয়েকজনকে শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছে বলে জানা যায়।

তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়, বেনাপোল কাস্টম নিলাম বাইক, বাইক পয়েন্ট, কাস্টম বাইক সেল ও বর্ডার ক্রস কাস্টম বাইকসহ ফেসবুক পেজ ও আইডি খুলে মোটরসাইকেল বিক্রি করছে কয়েকটি প্রতারক চক্র।  দীর্ঘদিন ধরে এসব প্রতারক চক্র বিভিন্ন ধরনের বাইকের ফেক ভিডিও বানিয়ে বিক্রি সহ কাস্টম নিলাম বাইক বলে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছে। বাজার দর ছাড়া কম মূল্যে এসব বাইক বিক্রির কথা বলে বাইক হাতে না পেয়েই নিজেদের অর্থ খুইয়ে প্রতারণার শিকার হয়েছেন অনেকে।

সম্প্রতি এমন প্রতারণার বিষয়টি সামনে আসলে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বেনাপোল সীমান্তের কোথাও বেনাপোল কাস্টম নিলাম  বাইকসহ এ ধরনের কোন বিক্রয় স্পটের অস্তিত্ব নেই।

 

বেনাপোল ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আজিম উদ্দিন গাজী বলেন, একমাত্র টি ভি এস শো-রুম ছাড়া বেনাপোল সীমান্তের কোথাও আর কোন শো-রুমের অস্তিত্ব নেই। এটি একটি প্রতারক চক্র। ফেসবুকে এই সমস্ত প্রতারক চক্র বিভিন্ন নাম ব্যবহার করে সাধারণ মানুষের সাথে প্রাতারণা করছে। আমি বেনাপোল বাসী সহ সকলকে সাবধান থাকার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

 

এদিকে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ কাজ করছে বলে জানান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামাল হোসেন ভূঁইয়া বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা বিষয়টি তদন্ত করে প্রতারক চক্রের কয়েকজনকে শনাক্ত করেছি।  চক্রটির বিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। কেউ এই চক্রটির মাধ্যমে প্রতারিত হবেন না।