চুয়াডাঙ্গা ০৯:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ
চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ চুয়াডাঙ্গায় আন্ত‌জেলা অজ্ঞান পার্টির সক্রিয় ৬ সদস্য  আটক; চেতনা নাশক ঔষধ উদ্ধার দামুড়হুদার ডুগডুগি বাজারে বিট পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার ফয়জুর রহমান-অপরাধ দমনে পুলিশ কে তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন স্ত্রী‌কে সম্ভ্রমহা‌নি করার অপরা‌ধে ক‌বিরাজ‌কে জবাই ক‌রে হত্যা দামুড়হুদায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি টগর-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় জনগণের কথা চিন্তা করে দামুড়হুদায় মাশরুম চাষ সম্প্রসারণে মাঠ দিবসে সাবেক মহাপরিচালক ড. হামিদুর রহমান -চুয়াডাঙ্গার মাটি কৃষির ঘাটি দামুড়হুদায় জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা দামুড়হুদার আটকবর মোড়ে পূর্ববিরোধের জেরে ২জনকে কুপিয়ে, মারপিটে জখম করার অভিযোগ  দামুড়হুদার দুটি রাস্তার উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন কালে এমপি টগর -আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়নমূখী সরকার দামুড়হুদায় বোরো ধান সংগ্রহের লটারী অনুষ্ঠিত 

লাহোরে পুলিশি অভিযান ইমরান খানের সমাবেশে, নিহত ১

পিটিআইয়ের এক কর্মীকে আটক করছেন পাঞ্জাব পুলিশের কয়েকজন সদস্য /ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তানের লাহোরে পুলিশি অভিযানে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের রাজনৈতিক দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) এক কর্মী নিহত হয়েছেন। বুধবার (৮ মার্চ) পিটিআইয়ের বিক্ষোভ সমাবেশ চলাকালে এ অভিযান চালায় পাঞ্জাব পুলিশ।

 

নিহত পিটিআই কর্মীর নাম আলি বিলাল। তিনি লাহোরের জাহাঙ্গির টাওনের অধিবাসী। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন মতে, পুলিশের প্রচণ্ড লাঠিচার্জে আহত হন যুবক আলি বিলাল। একপর্যায়ে তার মৃত্যু হয়।

 

পাকিস্তান ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়, পাকিস্তানের রাজনৈতি অস্থিতিরতা ক্রমেই বাড়ছে। এর মধ্যেই ইমরান খানকের গ্রেফতার চেষ্টা করায় চরম ক্ষুব্ধ হয়েছেন পিটিআই কর্মীরা। এরই ফলস্বরূপ বুধবার প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই লাহোরে সমাবেশ করে পিটিআই। এতে হাজার হাজার পিটিআই নেতা-কর্মী অংশ নেন।

 

পিটিআই নেতা-কর্মীদের দাবি, বিক্ষোভ সমাবেশ শান্তিপূর্ণ হলেও, হঠাৎ করেই সাড়াশি অভিযান চালায় পুলিশ। একপর্যায়ে পুলিশ ও পিটিআই কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এরপর লাহোরের মল রোড ও ক্যানাল রোডে দফায় দফায় সংঘর্ষ চলে। পুলিশ লাঠিচার্জ, জলকামান ও কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে সমাবেশ পণ্ড করার চেষ্টা করে। জবাবে ইট-পাথর ছোড়ে ইমরান খানের সমর্থকরা।

 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, এদিন পুলিশের অভিযানে অনেকেই আহত হয়েছেন। তাছাড়া আটক করা হয়েছে বেশ কয়েকজনকে। পিটিআই নেতা-কর্মীরা বলছেন, ইমরান খানকে কোনোভাবেই গ্রেফতার করতে দেওয়া হবে না। তাকে গ্রেফতার করতে হলে আগে নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করতে হবে।

এদিকে, আলি বিলালের মৃত্যুর ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ইমরান খান। এ সংক্রান্ত এক টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, আলি বিলাল পিটিআইয়ের নিরস্ত্র, নিবেদিতপ্রাণ এক কর্মী ছিলেন। পাঞ্জাব পুলিশের নির্যাতনে তার মৃত্যু হয়েছে। নির্বাচনী সমাবেশে যোগ দিতে আসা নিরস্ত্র পিটিআই কর্মীদের ওপর পুলিশের এ বর্বরতা অন্তত লজ্জাজনক।

তোশাখানার মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ২৮ ফেব্রুয়ারি ইমরান খানের বিরুদ্ধে জামিন–অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। রোববার (৫ মার্চ) আদালতের সমন ছাড়াই ইসলামাবাদ পুলিশ ইমরান খানকে গ্রেফতারের উদ্দেশ্যে তার লাহোরের বাড়িতে অভিযান চালায়। তবে সেদিন তাকে ওই বাড়িতে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

 

এরপর থেকেই ইমরান খানের বাড়ির সামনে লাগাতার অবস্থান করছেন পিটিআই নেতা-কর্মীরা। গ্রেফতার এড়িয়ে সেদিন বিকেলেই জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন ইমরান খান। বলেন, গ্রেফতারি এড়াতে আমি দেশ ছেড়ে পালাইনি। আমি কোনোদিন কারও সামনে মাথা নত করিনি, ভবিষ্যতেও করবো না। আর দেশ ছেড়ে পালানোর বিন্দুমাত্র ইচ্ছা আমার নেই।

সূত্র: ডন

জনপ্রিয় সংবাদ

চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

লাহোরে পুলিশি অভিযান ইমরান খানের সমাবেশে, নিহত ১

প্রকাশ : ১১:১৮:৪১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মার্চ ২০২৩

পাকিস্তানের লাহোরে পুলিশি অভিযানে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের রাজনৈতিক দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) এক কর্মী নিহত হয়েছেন। বুধবার (৮ মার্চ) পিটিআইয়ের বিক্ষোভ সমাবেশ চলাকালে এ অভিযান চালায় পাঞ্জাব পুলিশ।

 

নিহত পিটিআই কর্মীর নাম আলি বিলাল। তিনি লাহোরের জাহাঙ্গির টাওনের অধিবাসী। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন মতে, পুলিশের প্রচণ্ড লাঠিচার্জে আহত হন যুবক আলি বিলাল। একপর্যায়ে তার মৃত্যু হয়।

 

পাকিস্তান ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়, পাকিস্তানের রাজনৈতি অস্থিতিরতা ক্রমেই বাড়ছে। এর মধ্যেই ইমরান খানকের গ্রেফতার চেষ্টা করায় চরম ক্ষুব্ধ হয়েছেন পিটিআই কর্মীরা। এরই ফলস্বরূপ বুধবার প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই লাহোরে সমাবেশ করে পিটিআই। এতে হাজার হাজার পিটিআই নেতা-কর্মী অংশ নেন।

 

পিটিআই নেতা-কর্মীদের দাবি, বিক্ষোভ সমাবেশ শান্তিপূর্ণ হলেও, হঠাৎ করেই সাড়াশি অভিযান চালায় পুলিশ। একপর্যায়ে পুলিশ ও পিটিআই কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এরপর লাহোরের মল রোড ও ক্যানাল রোডে দফায় দফায় সংঘর্ষ চলে। পুলিশ লাঠিচার্জ, জলকামান ও কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে সমাবেশ পণ্ড করার চেষ্টা করে। জবাবে ইট-পাথর ছোড়ে ইমরান খানের সমর্থকরা।

 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, এদিন পুলিশের অভিযানে অনেকেই আহত হয়েছেন। তাছাড়া আটক করা হয়েছে বেশ কয়েকজনকে। পিটিআই নেতা-কর্মীরা বলছেন, ইমরান খানকে কোনোভাবেই গ্রেফতার করতে দেওয়া হবে না। তাকে গ্রেফতার করতে হলে আগে নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করতে হবে।

এদিকে, আলি বিলালের মৃত্যুর ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ইমরান খান। এ সংক্রান্ত এক টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, আলি বিলাল পিটিআইয়ের নিরস্ত্র, নিবেদিতপ্রাণ এক কর্মী ছিলেন। পাঞ্জাব পুলিশের নির্যাতনে তার মৃত্যু হয়েছে। নির্বাচনী সমাবেশে যোগ দিতে আসা নিরস্ত্র পিটিআই কর্মীদের ওপর পুলিশের এ বর্বরতা অন্তত লজ্জাজনক।

তোশাখানার মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ২৮ ফেব্রুয়ারি ইমরান খানের বিরুদ্ধে জামিন–অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। রোববার (৫ মার্চ) আদালতের সমন ছাড়াই ইসলামাবাদ পুলিশ ইমরান খানকে গ্রেফতারের উদ্দেশ্যে তার লাহোরের বাড়িতে অভিযান চালায়। তবে সেদিন তাকে ওই বাড়িতে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

 

এরপর থেকেই ইমরান খানের বাড়ির সামনে লাগাতার অবস্থান করছেন পিটিআই নেতা-কর্মীরা। গ্রেফতার এড়িয়ে সেদিন বিকেলেই জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন ইমরান খান। বলেন, গ্রেফতারি এড়াতে আমি দেশ ছেড়ে পালাইনি। আমি কোনোদিন কারও সামনে মাথা নত করিনি, ভবিষ্যতেও করবো না। আর দেশ ছেড়ে পালানোর বিন্দুমাত্র ইচ্ছা আমার নেই।

সূত্র: ডন