চুয়াডাঙ্গা ১২:১১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ
চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ চুয়াডাঙ্গায় আন্ত‌জেলা অজ্ঞান পার্টির সক্রিয় ৬ সদস্য  আটক; চেতনা নাশক ঔষধ উদ্ধার দামুড়হুদার ডুগডুগি বাজারে বিট পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার ফয়জুর রহমান-অপরাধ দমনে পুলিশ কে তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন স্ত্রী‌কে সম্ভ্রমহা‌নি করার অপরা‌ধে ক‌বিরাজ‌কে জবাই ক‌রে হত্যা দামুড়হুদায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি টগর-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় জনগণের কথা চিন্তা করে দামুড়হুদায় মাশরুম চাষ সম্প্রসারণে মাঠ দিবসে সাবেক মহাপরিচালক ড. হামিদুর রহমান -চুয়াডাঙ্গার মাটি কৃষির ঘাটি দামুড়হুদায় জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা দামুড়হুদার আটকবর মোড়ে পূর্ববিরোধের জেরে ২জনকে কুপিয়ে, মারপিটে জখম করার অভিযোগ  দামুড়হুদার দুটি রাস্তার উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন কালে এমপি টগর -আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়নমূখী সরকার দামুড়হুদায় বোরো ধান সংগ্রহের লটারী অনুষ্ঠিত 

মেহেরপুরের আঞ্চলিক ইজতেমা আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো

মেহেরপুরের সাবেক সিভিল সার্জন এবং তাবলীগ জামাতের বর্তমান রাজশাহী জেলা আমির ডা. আমিনুল ইসলামের বয়ান ও আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো মেহেরপুর জেলার তিন দিনব্যাপী আঞ্চলিক ইজতেমা।

 

শুক্রবার (১৫ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত আখেরি মোনাজাতে আত্মশুদ্ধি ও নিজ নিজ গুনাহ মাফের পাশাপাশি দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে হেফাজত করার জন্য দুই হাত তুলে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে রহমত প্রার্থনা করা হয়।

 

বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) মেহেরপুর সরকারি কলেজ মাঠে ফজরের নামাজের পর আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছিল তাবলীগ জামাতের আয়োজিত এ আঞ্চলিক ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা। আর শুক্রবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো সেই আনুষ্ঠানিকতার।

 

এবারের ইজতেমা মাঠে মেহেরপুর জেলাসহ পার্শ্ববর্তী কয়েকটি জেলা থেকে কয়েক হাজারের বেশি মুসল্লি সমবেত হয়েছিলেন। এছাড়াও ইন্দোনেশিয়া থেকে ১১ জনসহ ভারত থেকেও কয়েকজন মুসল্লি সমবেত হয়েছেন এ ইজতেমা ময়দানে।

 

আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে সকাল থেকেই জেলা বিভিন্ন প্রান্ত হতে মাঠে লোকসমাগম শুরু হয়। জুমার নামাজের সময় ইজতেমার মাঠটি জনসমুদ্রে পরিণত হয়। আনুমানিক প্রায় দশ হাজারেরও বেশি মুসল্লি আখেরি মোনাজাতে অংশ নেন।

 

মেহেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুল আহসান জানান, ইজতেমার সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তিন স্তরের নিরাপত্তাবলয় তৈরি করা হয়েছিল। র‌্যাব ও পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকেও পুলিশ কাজ করছে। এছাড়াও ইজতেমা মাঠ প্রাঙ্গনের নিরাপত্তা রক্ষায় শতাধিক পুলিশ সদস্য সার্বক্ষণিকভাবে দায়িত্ব পালন করেছে।

 

জনপ্রিয় সংবাদ

চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

মেহেরপুরের আঞ্চলিক ইজতেমা আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো

প্রকাশ : ০৬:৫৫:৩৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২৩

মেহেরপুরের সাবেক সিভিল সার্জন এবং তাবলীগ জামাতের বর্তমান রাজশাহী জেলা আমির ডা. আমিনুল ইসলামের বয়ান ও আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো মেহেরপুর জেলার তিন দিনব্যাপী আঞ্চলিক ইজতেমা।

 

শুক্রবার (১৫ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত আখেরি মোনাজাতে আত্মশুদ্ধি ও নিজ নিজ গুনাহ মাফের পাশাপাশি দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে হেফাজত করার জন্য দুই হাত তুলে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে রহমত প্রার্থনা করা হয়।

 

বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) মেহেরপুর সরকারি কলেজ মাঠে ফজরের নামাজের পর আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছিল তাবলীগ জামাতের আয়োজিত এ আঞ্চলিক ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা। আর শুক্রবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো সেই আনুষ্ঠানিকতার।

 

এবারের ইজতেমা মাঠে মেহেরপুর জেলাসহ পার্শ্ববর্তী কয়েকটি জেলা থেকে কয়েক হাজারের বেশি মুসল্লি সমবেত হয়েছিলেন। এছাড়াও ইন্দোনেশিয়া থেকে ১১ জনসহ ভারত থেকেও কয়েকজন মুসল্লি সমবেত হয়েছেন এ ইজতেমা ময়দানে।

 

আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে সকাল থেকেই জেলা বিভিন্ন প্রান্ত হতে মাঠে লোকসমাগম শুরু হয়। জুমার নামাজের সময় ইজতেমার মাঠটি জনসমুদ্রে পরিণত হয়। আনুমানিক প্রায় দশ হাজারেরও বেশি মুসল্লি আখেরি মোনাজাতে অংশ নেন।

 

মেহেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুল আহসান জানান, ইজতেমার সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তিন স্তরের নিরাপত্তাবলয় তৈরি করা হয়েছিল। র‌্যাব ও পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকেও পুলিশ কাজ করছে। এছাড়াও ইজতেমা মাঠ প্রাঙ্গনের নিরাপত্তা রক্ষায় শতাধিক পুলিশ সদস্য সার্বক্ষণিকভাবে দায়িত্ব পালন করেছে।