চুয়াডাঙ্গা ১১:০৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ
চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ চুয়াডাঙ্গায় আন্ত‌জেলা অজ্ঞান পার্টির সক্রিয় ৬ সদস্য  আটক; চেতনা নাশক ঔষধ উদ্ধার দামুড়হুদার ডুগডুগি বাজারে বিট পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার ফয়জুর রহমান-অপরাধ দমনে পুলিশ কে তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন স্ত্রী‌কে সম্ভ্রমহা‌নি করার অপরা‌ধে ক‌বিরাজ‌কে জবাই ক‌রে হত্যা দামুড়হুদায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি টগর-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় জনগণের কথা চিন্তা করে দামুড়হুদায় মাশরুম চাষ সম্প্রসারণে মাঠ দিবসে সাবেক মহাপরিচালক ড. হামিদুর রহমান -চুয়াডাঙ্গার মাটি কৃষির ঘাটি দামুড়হুদায় জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা দামুড়হুদার আটকবর মোড়ে পূর্ববিরোধের জেরে ২জনকে কুপিয়ে, মারপিটে জখম করার অভিযোগ  দামুড়হুদার দুটি রাস্তার উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন কালে এমপি টগর -আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়নমূখী সরকার দামুড়হুদায় বোরো ধান সংগ্রহের লটারী অনুষ্ঠিত 

কোন কানে ফোন ধরবেন?

ছবি সংগৃহিত

ফোন থেকে অনেক ধরনের রেডিয়েশন বের হয়, যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এমন পরিস্থিতিতে দীর্ঘক্ষণ ফোনে কথা বলাও মারাত্মক ক্ষতির কারণ হতে পারে। কারণ ফোন থেকে অনেক ধরনের রেডিয়েশন বের হয়, যা মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এর পরও কানভেদে ফোন ধরায় ক্ষতির তারতাম্য হয়। এ বিষয়ে ফিনল্যান্ডের একদল বিজ্ঞানী তাদের গবেষণায় দেখেছেন, ডান ও বাম কানে ফোন ধরার মধ্যে তারতম্য রয়েছে।

 

 

বিজ্ঞানীরা অনেক দিন ধরেই বলে আসছেন, স্মার্টফোন হোক কিংবা ফিচার ফোন-উভয় ধরনের ফোনই বেশি ব্যবহার করা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। তাই ফোনে কথা বলার সময় ফোন কোন কানে ধরবেন, ডান নাকি বাঁ কান-এ নিয়ে দীর্ঘ জিজ্ঞাসা ছিল।

বে শির ভাগ মানুষ ফোনে কথা বলার সময় তাদের ডান কান ব্যবহাস্মার্টফোন র করেন। একটি গবেষণা অনুযায়ী, ডান দিকের কান সরাসরি মস্তিষ্ককে প্রভাবিত করে। ফলে আপনি ছোট ছোট বিষয় নিয়ে চিন্তিত হতে পারেন। তখন বিকিরণ মস্তিষ্ককে বেশি প্রভাবিত করে। এর অন্যতম কারণ হচ্ছে বিশ্বের ৯০ শতাংশ মানুষ ডানহাতি। ফলে যেকোনো কাজ করার জন্য প্রথমেই তারা ডান হাত, ডান পা বা ডান কান ব্যবহার করেন। তবে ডান কানের ফোন ধরার জন্য নানা সমস্যা দেখা দেয় ব্যবহারকারীর।

 

 

বাঁ কানের তুলনায় ডান কান মস্তিষ্কের বেশি কাছে থাকে। ফলে ডান কানে ফোন রেখে কথা বললে ব্রেনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। তাই ফোনে কথা বলার সময় বাঁ দিকের কান ব্যবহার করা উচিত। ফিনল্যান্ডের বিজ্ঞানী এবং নিউক্লিয়ার সেফটি অথরিটির ২০০২ সালের একটি গবেষণায় বলা হয়েছিল, যখন মানুষের কোষ ফোনের সংস্পর্শে আসে তখন মোবাইল ব্লাড-ব্রেন ব্যারিয়ার-এর প্রাচীর ক্ষতিগ্রস্ত করে। ব্লাড-ব্রেন ব্যারিয়ার-এর বাধা মানবদেহে সুরক্ষা কবচ হিসাবে পরিচিত। এটি রক্তের দূষিত পদার্থগুলোকে মস্তিষ্কে প্রবেশ করতে বাধা দেয়।

প্রসঙ্গঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

কোন কানে ফোন ধরবেন?

প্রকাশ : ০৮:০৮:১৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩

ফোন থেকে অনেক ধরনের রেডিয়েশন বের হয়, যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এমন পরিস্থিতিতে দীর্ঘক্ষণ ফোনে কথা বলাও মারাত্মক ক্ষতির কারণ হতে পারে। কারণ ফোন থেকে অনেক ধরনের রেডিয়েশন বের হয়, যা মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এর পরও কানভেদে ফোন ধরায় ক্ষতির তারতাম্য হয়। এ বিষয়ে ফিনল্যান্ডের একদল বিজ্ঞানী তাদের গবেষণায় দেখেছেন, ডান ও বাম কানে ফোন ধরার মধ্যে তারতম্য রয়েছে।

 

 

বিজ্ঞানীরা অনেক দিন ধরেই বলে আসছেন, স্মার্টফোন হোক কিংবা ফিচার ফোন-উভয় ধরনের ফোনই বেশি ব্যবহার করা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। তাই ফোনে কথা বলার সময় ফোন কোন কানে ধরবেন, ডান নাকি বাঁ কান-এ নিয়ে দীর্ঘ জিজ্ঞাসা ছিল।

বে শির ভাগ মানুষ ফোনে কথা বলার সময় তাদের ডান কান ব্যবহাস্মার্টফোন র করেন। একটি গবেষণা অনুযায়ী, ডান দিকের কান সরাসরি মস্তিষ্ককে প্রভাবিত করে। ফলে আপনি ছোট ছোট বিষয় নিয়ে চিন্তিত হতে পারেন। তখন বিকিরণ মস্তিষ্ককে বেশি প্রভাবিত করে। এর অন্যতম কারণ হচ্ছে বিশ্বের ৯০ শতাংশ মানুষ ডানহাতি। ফলে যেকোনো কাজ করার জন্য প্রথমেই তারা ডান হাত, ডান পা বা ডান কান ব্যবহার করেন। তবে ডান কানের ফোন ধরার জন্য নানা সমস্যা দেখা দেয় ব্যবহারকারীর।

 

 

বাঁ কানের তুলনায় ডান কান মস্তিষ্কের বেশি কাছে থাকে। ফলে ডান কানে ফোন রেখে কথা বললে ব্রেনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। তাই ফোনে কথা বলার সময় বাঁ দিকের কান ব্যবহার করা উচিত। ফিনল্যান্ডের বিজ্ঞানী এবং নিউক্লিয়ার সেফটি অথরিটির ২০০২ সালের একটি গবেষণায় বলা হয়েছিল, যখন মানুষের কোষ ফোনের সংস্পর্শে আসে তখন মোবাইল ব্লাড-ব্রেন ব্যারিয়ার-এর প্রাচীর ক্ষতিগ্রস্ত করে। ব্লাড-ব্রেন ব্যারিয়ার-এর বাধা মানবদেহে সুরক্ষা কবচ হিসাবে পরিচিত। এটি রক্তের দূষিত পদার্থগুলোকে মস্তিষ্কে প্রবেশ করতে বাধা দেয়।