চুয়াডাঙ্গা ১২:৩৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ
চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ চুয়াডাঙ্গায় আন্ত‌জেলা অজ্ঞান পার্টির সক্রিয় ৬ সদস্য  আটক; চেতনা নাশক ঔষধ উদ্ধার দামুড়হুদার ডুগডুগি বাজারে বিট পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার ফয়জুর রহমান-অপরাধ দমনে পুলিশ কে তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন স্ত্রী‌কে সম্ভ্রমহা‌নি করার অপরা‌ধে ক‌বিরাজ‌কে জবাই ক‌রে হত্যা দামুড়হুদায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি টগর-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় জনগণের কথা চিন্তা করে দামুড়হুদায় মাশরুম চাষ সম্প্রসারণে মাঠ দিবসে সাবেক মহাপরিচালক ড. হামিদুর রহমান -চুয়াডাঙ্গার মাটি কৃষির ঘাটি দামুড়হুদায় জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা দামুড়হুদার আটকবর মোড়ে পূর্ববিরোধের জেরে ২জনকে কুপিয়ে, মারপিটে জখম করার অভিযোগ  দামুড়হুদার দুটি রাস্তার উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন কালে এমপি টগর -আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়নমূখী সরকার দামুড়হুদায় বোরো ধান সংগ্রহের লটারী অনুষ্ঠিত 

আলমডাঙ্গায় চুরির মালামালসহ ১২ ঘণ্টার মধ্যে আসামি গ্রেপ্তার

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় চুরি যাওয়া মালামালসহ ১২ ঘণ্টার মধ্যে দুজন আসামি গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।  আলমডাঙ্গা থানায় মামলা করার ১২ ঘণ্টার মধ্যে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় চুরি যাওয়া নগদ টাকা, মোবাইল ফোন এবং স্বর্ণালংকার উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

সোমবার (২৯ মে) ভোর থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত মেহেরপুর সদর এবং গাংনী থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার এবং মালামাল উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মেহেরপুর জেলার সদর থানার কালীগাংনী গ্রামের জুল্লুর রহমানের ছেলে রবিউল ইসলাম (৩৬) এবং মেহেরপুর জেলার গাংনী থানার ভিটাপাড়ার মৃত খলিলুর রহমানের ছেলে আজিম (৪৬)।

 

চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল-মামুন বলেন, আলমডাঙ্গা থানার হাটুভাঙ্গা গ্রামের রবিউল হকের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (৪২) বাদী হয়ে রবিবার (২৮ মে) আলমডাঙ্গা থানায় অজ্ঞাতনামীয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

 

তিনি এজাহারে উল্লেখ করেন, তার স্ত্রী শ্বশুরবাড়িতে থাকায় চার রুম বিশিষ্ট একতলা বাড়ির সব দরজায় তালা লাগিয়ে ব্যাবসায়িক প্রয়োজনে দুপুর ১২টার দিকে বাইরে যান। এরপর বিকাল ৩টায় ফিরে এসে দেখেন বাড়ির মেইন দরজাসহ শোয়ার ঘরে ড্রেসিং টেবিলের ড্রয়ারে এবং শোয়ার ঘরের শোকেচের ড্রয়ারের তালা ভাঙা। এতে নগদ টাকা, মোবাইল ফোন এবং স্বর্ণালংকারসহ মোট তিন লাখ চব্বিশ হাজার টাকার মালামাল চুরি যায়।

মামলার পর জেলা গোয়েন্দা শাখার টিম তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় পার্শ্ববর্তী মেহেরপুর সদর ও গাংনী থানায় অভিযান চালিয়ে রবিউল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে এবং তার হেফাজত থাকা নগদ ৮০ হাজার টাকা, ২টি মোবাইল ফোন, ২টি স্বর্ণের হাতের বালা উদ্ধার করা হয়।

 

গ্রেপ্তার রবিউল ইসলামের দেওয়া তথ্য মতে আলিফ জুয়েলার্সের মালিক আজিমকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে চোরাই মালামালগুলো তার হেফাজতে আছে বলে স্বীকার করেন। তার কাছ থেকে ৩ জোড়া কানের দুল, লকেটসহ ২টি চেইন এবং ৬টি আংটি নিজ হাতে বের করে দেন।

 

তিনি আরো বলেন, গ্রেপ্তার আসামিদেরকে সোমবার (২৯ মে) আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

চুয়াডাঙ্গায় উন্নত ব্যবস্থাপনায় মাছ চাষের উপর প্রশিক্ষণ

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

আলমডাঙ্গায় চুরির মালামালসহ ১২ ঘণ্টার মধ্যে আসামি গ্রেপ্তার

প্রকাশ : ০৭:১২:০৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০২৩

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় চুরি যাওয়া মালামালসহ ১২ ঘণ্টার মধ্যে দুজন আসামি গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।  আলমডাঙ্গা থানায় মামলা করার ১২ ঘণ্টার মধ্যে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় চুরি যাওয়া নগদ টাকা, মোবাইল ফোন এবং স্বর্ণালংকার উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

সোমবার (২৯ মে) ভোর থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত মেহেরপুর সদর এবং গাংনী থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার এবং মালামাল উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মেহেরপুর জেলার সদর থানার কালীগাংনী গ্রামের জুল্লুর রহমানের ছেলে রবিউল ইসলাম (৩৬) এবং মেহেরপুর জেলার গাংনী থানার ভিটাপাড়ার মৃত খলিলুর রহমানের ছেলে আজিম (৪৬)।

 

চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল-মামুন বলেন, আলমডাঙ্গা থানার হাটুভাঙ্গা গ্রামের রবিউল হকের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (৪২) বাদী হয়ে রবিবার (২৮ মে) আলমডাঙ্গা থানায় অজ্ঞাতনামীয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

 

তিনি এজাহারে উল্লেখ করেন, তার স্ত্রী শ্বশুরবাড়িতে থাকায় চার রুম বিশিষ্ট একতলা বাড়ির সব দরজায় তালা লাগিয়ে ব্যাবসায়িক প্রয়োজনে দুপুর ১২টার দিকে বাইরে যান। এরপর বিকাল ৩টায় ফিরে এসে দেখেন বাড়ির মেইন দরজাসহ শোয়ার ঘরে ড্রেসিং টেবিলের ড্রয়ারে এবং শোয়ার ঘরের শোকেচের ড্রয়ারের তালা ভাঙা। এতে নগদ টাকা, মোবাইল ফোন এবং স্বর্ণালংকারসহ মোট তিন লাখ চব্বিশ হাজার টাকার মালামাল চুরি যায়।

মামলার পর জেলা গোয়েন্দা শাখার টিম তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় পার্শ্ববর্তী মেহেরপুর সদর ও গাংনী থানায় অভিযান চালিয়ে রবিউল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে এবং তার হেফাজত থাকা নগদ ৮০ হাজার টাকা, ২টি মোবাইল ফোন, ২টি স্বর্ণের হাতের বালা উদ্ধার করা হয়।

 

গ্রেপ্তার রবিউল ইসলামের দেওয়া তথ্য মতে আলিফ জুয়েলার্সের মালিক আজিমকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে চোরাই মালামালগুলো তার হেফাজতে আছে বলে স্বীকার করেন। তার কাছ থেকে ৩ জোড়া কানের দুল, লকেটসহ ২টি চেইন এবং ৬টি আংটি নিজ হাতে বের করে দেন।

 

তিনি আরো বলেন, গ্রেপ্তার আসামিদেরকে সোমবার (২৯ মে) আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।